আদালতের নির্দেশে আজ জেরিনের লাশ কবর থেকে উত্তোলন


হবিগঞ্ছ জেলা সংবাদদাতা: দাফনের ১০ দিন পর আজ বৃহস্পতিবার হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রিচি উচ্চ বিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী মাদিনাতুল কোবরা জেরিনের লাশ কবর থেকে তোলা হচ্ছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার (ওসি) মোঃ মাসুক আলী। তিনি জানান, জেরিনের মৃত্যুর পর প্রথমে সে সড়ক দূর্ঘটনায় মারা গেছে মনে করে তার লাশ দাফন করা হয়। পরবর্তীতে পুলিশের তদন্তের বেড়িয়ে আসে ভিন্ন কাহীনি। সড়ক দূর্ঘটনা নয় প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় তাকে সিএনজি অটোরিক্সা থেকে ফেলে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়। তাই আদালতের নির্দেশে ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ তোলা হচ্ছে। নিহত শিক্ষার্থী জেরিন সদর উপজেলার ধল গ্রামের আব্দুল হাই মিয়ার কন্যা।
উল্লেখ্য, গত ১৮ জানুয়ারী জেরিন স্কুলে যাওয়ার পথে পুর্বপরিকল্পিত ভাবে তার বাড়ির সামনে একটি একটি সিএনজি অটোরিক্সা দাড় করিয়ে রাখে একই গ্রামের দিদার হোসেনের ছেলে প্রেমিক জাকির হোসেন। পরে জেরিন বাড়ি থেকে বের হয়েই সিএনজিতে উঠে যায়। পথিমধ্যে জাকির হোসেন ও তার সহযোগী হৃদয় সিএনজিতে উঠে পরে। সিএনজিতে উঠার পর তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এ সময় জাকির হোসেন জেরিনকে অপরহরণ করে নিয়ে যেতে চাইলে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে জেরিনকে সিএনজি থেকে ফেলে দেয় জাকির ও তার সহযোগিরা। পরে আহত অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৯ জানুয়ারী ভোররাতে সে মারা যায়। ঘটনাটি প্রথমে সড়ক দূর্ঘটনা মনে করা হলেও পুলিশের তদন্তে বেড়িয়ে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। সড়ক দূর্ঘটনা নয় একতরফা প্রেমের বলি হয় শিক্ষার্থী জেরিন। বিষয়টি জানার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রধান অভিযুক্ত জাকির হোসেন আটক করলে সে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। এখন পলাতক রয়েছে জাকিরের দুই সহযোগি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*