২০-দলীয় জোটের সমাবেশে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব:আন্দোলনেই সরকারের পতন

by News Room

ডেস্ক: বর্তমান সংসদ জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না উল্লেখ করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সংসদ নয়, আওয়ামী লীগের হাতে যাচ্ছে বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা।

সম্প্রচার নীতিমালা বাতিলের দাবিতে মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ২০-দলীয় জোটের সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সংসদ জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না। সংসদ নয়, আওয়ামী লীগের হাতে যাচ্ছে বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা। দেশে দলীয় বিচার ব্যবস্থা তৈরির চেষ্টা হচ্ছে।

তিনি বলেন, অবৈধ সরকার একের পর এক অন্যায় পদক্ষেপের অংশ হিসেবে আবারো সংবিধান সংশোধনের উদ্যোগ নিয়েছে। এর মাধ্যমে তারা বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা হাতে নিচ্ছে।

বিএনপির মুখপাত্র বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আবারো বাকশালের পথে হাঁটছে। তাদের নেতাদের মুখ থেকে আগে গণতন্ত্রের ফেনা বের হলেও এখন তাদের আসল চেহারা উন্মোচিত হতে শুরু করেছে। তারা বলতে শুরু করেছেন- গণতন্ত্র থাকলে নাকি দেশের উন্নয়ন হয় না।’

তিনি বলেন, ক্ষমতাকে কুক্ষিগত, নিরঙ্কুশ ও চিরস্থায়ী করতে অবৈধ সরকার একের পর এক অন্যায় পদক্ষেপ নিচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা প্রণয়ন করছে সরকার। এভাবে তারা গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়, বাক-স্বাধীনতা হরণ করতে চায়।

মির্জা ফখরুল বলেন, এর আগে স্বাধীনতার পর এই আওয়ামী লীগ জনগণের বাক-স্বাধীনতাকে স্তব্ধ করে দিয়েছিল। তারা বাকশাল প্রতিষ্ঠা করে জনগণের অধিকার হরণ করেছিল। সব পত্রিকা বন্ধ করে দিয়ে মাত্র ৪টি পত্রিকা সরকারের নিয়ন্ত্রণে চালু রেখেছিল।

তিনি বলেন, আজও ঠিক একইভাবে এগিয়ে যাচ্ছে এই অবৈধ সরকার। গণামধ্যম নিয়ন্ত্রণ করে অবৈধ ক্ষমতা পাকাপোক্তা করতে চাচ্ছে তারা। এগুলোর একটাই উদ্দেশ্য যাতে তাদের অন্যায়-অপকর্ম নিয়ে কেউ কথা বলতে না পারে।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, এই সরকার চ্যানেল ওয়ান, ইসলামিক টিভি, দিগন্ত টিভি, জনপ্রিয় পত্রিকা আমাদের দেশ বন্ধ করে দিয়েছে। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ের মতোই তারা আবারো গণমাধ্যম বন্ধ করে দেয়ার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys