সাগর রুনি হত্যাকান্ডের জেরধরে প্যারিসে মাহফুজুর রহমানের উপর জুতা নিক্ষেপ

by News Room

ডেস্ক: প্যারিসে বাংলা মেলার অনুষ্ঠানে সাংবাদিক দম্পতি সাগর রুনি হত্যাকান্ডের জেরধরে এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান মাহফুজুর  রহমানকে লাঞ্চিত করা হয়েছে । এ সময় উত্তেজিত জনতা তাকে লক্ষ করে দফায় দফায় জুতা, বোতল, ইট-পাটকেল ও ডিম নিক্ষেপ করে ।  প্রায় ২ ঘন্টা শ্বাসরোদ্ধকর পরিস্থিতিতে অবরোধ থাকার পর পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে উত্তেজিত জনতাকে পিছু হটিয়ে কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনির মধ্যে দিয়ে তাকে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়া হয় । এ সময় পুলিশ কয়েকজন কে আটক করে।

গত রোববার বিকেলে (বাংলাদেশ সময় রাত ১১ টায় )  ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের লা করনব মাঠে মেলা চলাকালীন সময়ে এ ঘঠনা ঘটে।

সরজমিনে জানা যায়, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও বাংলাদেশ ইয়থ ক্লাব ফ্রান্স বাংলা মেলার আয়োজন করে। যথারীতি মেলা শুরু হয় দুপুর ১২ টায়। শুরুতেই ইয়থ ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক টিএম রেজার উপস্থাপনার প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহিদুল ইসলাম।

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান মাহফুজুর  রহমান, মেলার পৃষ্টপোষক কাজী এনায়েত উল্লাহ ইনু, মুক্তিযোদ্ধা জামিলুর রহমান, ইয়থ ক্লাবের সভাপতি শরিফ আল মোমিন । এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা সুনাম উদ্দিন খালেক, স্বপন আহমদ, সদস্য ইমদাদুল হক স্বপন, শুভ্রত শুভ, জুয়েল আহমদ, রুমেল আহমদ, কামাল মিয়া, সাংবাদিক নুরুল ওয়াহিদ, মিজান ভুইয়া, জাকারিয়া মিঠু প্রমুখ । পরে সংগঠনের  সাবেক উপদেষ্টা শহিদুল ইসলাম মানিক স্বরনে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয় ।

অনুষ্ঠানের ২য় পর্বে মোহিত ও রিমার প্রাণবন্ত উপস্থাপনার মধ্যে দিয়ে চলতে থাকে একে একে অনুষ্ঠান পর্ব। এতে যাদু, নিত্য,ডান্স পরিবেশিত হতে থাকে। সময় যত বাড়তে থাকে ততই লোক সমাগম বাড়তে থাকে । এক পর্যায়ে লা করনব মাঠ কয়েক হাজার বাংলাদেশীসহ বিদেশীদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠে। এ সময় মুল মঞ্চের ডান পাশ্বের নির্ধারিত আসনে অবস্থান গ্রহণ করেন অতিথিরা ।

বিকেল ৫টায় অতিথি আসনের পিছন থেকে ফেনীর একদল যুবক এটিএন বাংলা টিভির চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমানকে উদ্দেশ্য করে সাংবাদিক দম্পতি সাগর রুনি হত্যা কান্ডের মুল হোতা বলে আখ্যায়িত করে তাকে গালিগালাজ করতে থাকে । এক পর্যায়ে তারা তাকে লক্ষ করে ঢিল ছুড়ে মারে । সাময়িক ভাবে উত্তেজনা দেখা দিলে মেলা কর্তৃপক্ষ মাহফুজুর রহমানকে মূল মঞ্চে নিয়ে যান । এ সময় সঙ্গিত শিল্পি রবি চৌধুরী  গান পরিবেশন করছিলেন । তখন রবি চৌধুরী মাহফুজুর রহমানকে গান পরিবেশনের জন্য আমন্ত্রন জানালে উত্তেজিত জনতা তার প্রতিবাদ করেন । পরবর্তীতে মেলার লাকি কুপন ড্র অনুষ্ঠানের সময় মাহফুজুর রহমানকে পুরস্কার বিতরন করার জন্য আমন্ত্রন জানালে পুণরায় উত্তেজিত জনতা তীব্র প্রতিবাদ করে উঠে ।

এ সময় তারা মাহফুজুর রহমানের বিরোদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে দফায় দফায় জুতা, বোতল, ইট-পাটকেল ও ডিম নিক্ষেপ করতে থাকে । এক পর্যায়ে উপস্থিত নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী সু কৌশলে তাদেরকে গাড়িতে তুলে দিয়ে মেলা স্থান ত্যাগ করার চেষ্টা করলে তা ব্যর্থ হয় । পরে সঙ্গিত শিল্পি রবি চৌধুরীসহ আগত শিল্পিরা গাড়িতে উঠে চলে গেলে পথিমধ্যে ঐ গাড়ীতে মাহফুজুর রহমান আছেন সন্দেহ করে উত্তেজিত জনতা গাড়ীটি আটকিয়ে তল্লাশী করে শিল্পিদের ছেড়ে দেয় । এ সময় উত্তেজিত জনতার স্লোগানে মেলা প্রঙ্গণ প্রকম্পিত হতে থাকে । তারা মঞ্চে অবস্থানরত মাহফুজুর রহমানকে লক্ষ্য করে বৃষ্টির ন্যায় পূণরায় দফায় দফায় জুতা, বোতল, ইট-পাটকেল ও ডিম নিক্ষেপ করতে থাকে । এ সময় মাহফুজুর রহমানকে বাচাতে কয়েকজন মৃদু আহত হয় । প্রায় ২ ঘন্টা শ্বাসরোদ্ধকর পরিস্থিতিতে এরুপ অবস্থায় মাহফুজুর রহমান অবরোধ থাকার পর কোন উপায়ন্তর না দেখে মেলা কর্তৃপক্ষ পুলিশের সহযোগিতা চান ।

কিছুক্ষনের মধ্যে পুলিশ এসে মাহফুজুর রহমানকে রক্ষা করতে প্রযোজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করেও ব্যর্থ হয় । পরে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে মাহফুজুর রহমান কে নিরাপদে নিয়ে যায় । এ সময় পুলিশ কয়েকজনকে আটক করে।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys