সাক্ষাৎকার:চলচ্চিত্র ও নাটকে নিয়মিত কাজ করে যেতে চাই-তিশা

by News Room
বর্তমান সময়ের যে কজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী আছেন, তিশা তাদের অন্যতম। ঈদকে সামনে রেখে নাটকে অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত তিনি। সমসাময়িক নানা বিষয় নিয়ে আজ তার সাক্ষাৎকার

বিশ্বকাপ খেলা দেখেন?

ঈদের নাটকে অভিনয় নিয়ে এত ব্যস্ত থাকি যে খেলা দেখা হয়ে ওঠে না। তবে দেখার চেষ্টা করি। আমি মূলত ব্রাজিলের সমর্থক। সরয়ারও [মোস্তফা সরয়ার ফারুকী] ব্রাজিল। তাই আমি আর্জেন্টিনা হয়ে গেছি। এক বাসায় তো দুইজন ব্রাজিল থাকতে পারে না, তাই না!

 

ঈদে অভিনয়ের ব্যস্ততা কেমন?

এবারের ঈদে বেছে কিছু ভালো কাজ করার চেষ্টা করছি। তার মধ্যে রয়েছে ইমরাউল রাফাতের একক ‘দূরত্ব’ ও ছয় পর্বের ধারাবাহিক ‘হাওয়া বদল’। ওয়াহিদ আনামের ‘শূন্য’, সাগর জাহানের ‘সেকান্দার বঙ্রে হাওয়াই গাড়ি, জাকারিয়া সৌখিনের ‘প্রেম ও খুন’ এবং সুমন আনোয়ারের একটি একক নাটক। এ ছাড়া হাতে আরও কিছু ভালো স্কিপ্ট রয়েছে।

সম্প্রতি আপনার আর তাহসানের একটি বিজ্ঞাপন বিভিন্ন টেলিভিশনে প্রচার হচ্ছে। রেসপন্স কেমন পাচ্ছেন?

অবিশ্বাস্য রকমের ভালো। বিজ্ঞাপনটি অন্যরকম ছিল। কাপড় ধোয়া সাবানের বিজ্ঞাপন এর আগে এমন হয়নি। আর তাহসান ভাইয়ের সঙ্গে আমার জুটি দর্শক পছন্দ করে।

 

শাকিব খানের সঙ্গে আপনার চলচ্চিত্রের খবর কী?

ওটা একটু পিছিয়ে গেছে। তবে হবে। হলে তো সবাই জানতে পারবেন। এ ছাড়াও অনেকগুলো চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে কথা হচ্ছে।

 

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ডুবোশহর’র কি খবর?

আমি এখন ঈদের কাজগুলো নিয়ে ব্যস্ত আছি। ঈদের পর চলচ্চিত্রের কাজগুলো নিয়ে এগুবো। এরই মধ্যে ‘ডুবোশহর’ চলচ্চিত্রটির স্ক্রিপ্টের কাজ চলছে। শীঘ্রই সব কিছু চূড়ান্ত হবে।

তাহলে চলচ্চিত্রেই ব্যস্ত হয়ে যাচ্ছেন?

চলচ্চিত্র তো করব। তাই বলে ছোটপর্দা ছেড়ে দিচ্ছি না আমি। নাটক ছেড়ে শুধু চলচ্চিত্র নিয়ে ব্যস্ত হতে চাই না। নাটক দিয়েই দর্শকের কাছে আমি তিশা। তাই বলতে চাই, ছোটপর্দা হচ্ছে আমার অস্তিত্ব, আর বড়পর্দা আমার স্থায়িত্ব।

 

ছোট পর্দা ও বড় পর্দা, কোন মাধ্যমে কাজ করতে ভালো লাগে?

ছোট পর্দা ও বড় পর্দার মাধ্যম আলাদা হলেও অভিনয়টাই এখানে মুখ্য বিষয়। আমি আসলে অভিনেত্রী হিসেবেই থাকতে চাই। ছোট পর্দা আমার জন্মস্থান। আমি তো আমার জন্ম পরিচয় ভুলে থাকতে পারব না। প্রতিটি ক্ষেত্রই আমার কাছে সমান গুরুত্বপূর্ণ। বড় এবং ছোট পর্দায় নিয়মিত অভিনয় চালিয়ে যেতে চাই আমি।

 

নিজের প্রাপ্তির জায়গাটা কোথায়?

দর্শকদের অনেক ধন্যবাদ, তাদের অনেক ভালোবাসা পেয়েছি। তাদের আগ্রহ ও ভালোবাসায় আমি আজকের তিশা। এটাও একটা অর্জন। অভিনয় জীবনে তো আমি অনেক পুরস্কার পেয়েছি। তবে আমার জীবনের একটা বড় প্রাপ্তি হলো প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক এবারের বইমেলায় আমার মতো সাধারণ এক অভিনয়শিল্পীকে একটা বই উৎসর্গ করেছেন, যা আমি কখনো কল্পনাও করতে পারিনি। নিঃসন্দেহে এটা আমার জীবনের অনেক বড় প্রাপ্তি।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি?

চলচ্চিত্র ও নাটকে নিয়মিত কাজ করে যেতে চাই। তবে খুব এঙ্ক্লুসিভ গল্প না হলে সিরিয়ালে অভিনয় করব না।

 

 

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys