সমাজকল্যাণমন্ত্রীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানালেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন

by News Room

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী এক বিবৃতিতে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় কতৃক কোরানিক শিক্ষা গ্রহণকারী এতিমদের ক্যাপিটেশন গ্র্যান্টের ব্যাপারে অযৌক্তিক ও উদ্ভট শর্তারোপ এবং মাদ্রাসা শিক্ষার ব্যাপারে সমাজকল্যাণমন্ত্রীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, যারা সমাজকে নীতি-নৈতিকতাবিহীন করে মূল্যবোধের অবক্ষয় ও অধ:পতনের চুড়ান্ত সীমায় নিয়ে যেতে চায় তাদের পক্ষেই কেবল মাদ্রাসা শিক্ষা নিয়ে ষড়যন্ত্র করা এবং এহেন ঘৃণ্য বক্তব্য দেয়া সম্ভব।বিবৃতিতে তিনি বলেন, মাদ্রাসা শিক্ষিতরা দেশ ও জাতির জন্য সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে যাচ্ছেন। মাদ্রাসা ছাত্র ও শিক্ষিতদের মাঝে ধুমপায়ী, মদ্যপায়ী বা নেশাখোর সচরাচর দেখা যায়না। তারা শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস সৃষ্টি করে না। প্রতিবছর দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষায় মাদ্রাসা ছাত্ররা মেধা তালিকায় প্রথম দিকের স্থান দখল করে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ রাখছে। তারা মসজিদ-মাদ্রাসাগুলোতে শিক্ষা-দীক্ষা ও ওয়াজ-নসীহতের মাধ্যমে সমাজের নীতি-নৈতিকতার উন্নয়ন ও মূল্যবোধ সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে যাচ্ছেন। এ অবস্থায় একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে গায়ের জোরে ক্ষমতা দখলকারী বর্তমান সরকারের সমাজকল্যাণমন্ত্রী মাদ্রাসা শিক্ষা বন্ধ করে দেওয়া উচিত বলে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার দ্বারা বর্তমান সরকার যে দেশকে ভয়াবহ সামাজিক অবক্ষয়ের দিকে ঠেলে দেয়ার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত তারই প্রমাণ দিয়েছেন। তার বক্তব্য পুরোটাই বাস্তবতাবিরোধী এবং আপাত দৃষ্টিতে তা পাগলের প্রলাপ মনে হলেও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় কতৃক মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত প্রায় সাড়ে ৩ হাজার বেসরকারি এতিমখানার ‘ক্যাপিটেশন গ্র্যান্ট’-এর ব্যাপারে কঠিন শর্তারোপের মাধ্যমে প্রতীয়মান হয়েছে মাদ্রাসা শিক্ষা বন্ধ করার ষড়যন্ত্র সফল করতে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। অবিলম্বে এই ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে। অন্যথায় আল্লাহ ও তার রাসূলের শিক্ষা থেকে জাতিকে বঞ্চিত করার জঘন্য অপরাধে বর্তমান সরকার ঐশী ফায়সালা অনুযায়ীই ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হবে ইনশাআল্লাহ।মাওলানা হামিদী আরো বলেন, অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসা বর্তমান সরকার তার আগের মেয়াদ থেকেই দেশকে ধর্মহীন করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তারই অংশ হিসেবে তারা মাদ্রাসা শিক্ষার উপর আঘাত হানছে। প্রধানমন্ত্রী তনয় সজীব ওয়াজেদ জয় এবং মার্কিন সেনা কার্ল সিওভাক্কোর যৌথ নিবন্ধে এ ব্যাপারে খোলাখুলি আলোচনা করা হয়েছে। সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিদের মন্তব্য, বক্তব্যেও তা স্পষ্ট। এ অবস্থায় দেশের আপামর জনসাধারণকে সরকারের এই ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রকে নস্যাত করতে এগিয়ে আসতে হবে। অন্যথায় ভয়াবহ সামাজিক বিপর্যয় অত্যাসন্ন। তিনি সমাজকল্যাণ মন্ত্রীকে তার বক্তব্যের জন্য জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার ও বর্তমান সরকারকে মাদ্রাসা শিক্ষাবিরোধী তথা ইসলামবিরোধী কর্মকান্ড পরিহারের এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় কর্তক ‘ক্যাপিটেশন গ্র্যান্ট’-এর ব্যাপারে আরোপিত শর্ত অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys