সদর উপজেলা বিএনপির প্রার্থী কাহের শামীম

by News Room

নিউজ ডেস্ক : দফায় দফায় বৈঠক ও প্রার্থীদের সাক্ষাতকার নেয়ার পর রাত পৌণে ১টায় সিলেট সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মুবীন চৌধুরীর আস্থাভাজন আবুল কাহের শামীমকেই দলীয় সমর্থন দেয়া হয়েছে। কাহের শামীম বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য ও গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আশফাক আহমদের কাছে পরাজিত হয়েছিলেন।
আসন্ন সিলেট সদর উপজেলায় বিএনপির একক প্রার্থী দেওয়া নিয়ে শুরু হয় নানা নাটকীয়তা। গত কয়েদিন থেকে দফায় দফায় বৈঠক করেও কোন সমাধান করতে পারেননি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। অবশেষ দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াই একক প্রার্থী নির্ধারণে হস্তক্ষেপ করেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সিলেট সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহ জামাল নুরুল হুদা, সহ-সভাপতি টুকেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদ আহমদ ও জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের জেলা আহ্বায়ক আবদুর রাজ্জাক মনোনয়নপত্র জমা দেন।

অপরদিকে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হিসেবে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এমতাবস্থায় বিএনপি একক প্রার্থী দিতে মরিয়া হয়ে উঠে। কিন্তু বিএনপির মনোনয়ন জমাদানকারী প্রার্থীরা কেউ কাউকে ছাড় দিতে রাজি না থাকায় বিষয়টি বেগম জিয়া পর্যন্ত গড়িয়েছে।

জানা যায়, গত শুক্রবার রাতে বিএনপির চার প্রার্থীকে কেন্দ্রে তলব করা হয়। পরে শনিবার দুপুর ১২টার দিকে প্রথম দফায় বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মুবীন চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব শাহজাহান খান ও সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হোসেন জীবন চার প্রার্থীকে নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে বৈঠক করেন।

ওই বৈঠকে কেন্দ্রীয় সদস্য ও চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কাহের শামীমের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন বাকি তিন প্রার্থী। বৈঠকে কোন সমঝোতা না হওয়ায় পরবর্তীতে রোববার রাতে দুই দফায় নিজ বাসবভনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল দলের সমর্থন প্রত্যাশী ৪ প্রার্থীর সাথে আলাদা বৈঠক করেন। ঐ বৈঠকেও কোন সমঝোতা না হওয়ায় বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপর প্রার্থী নির্ধারনের ভার বর্তায়।

এমনকি সদর উপজেলায় দলের একক প্রার্থী নির্ধারণে কেন্দ্রের নির্দেশেই বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ মহানগর বিএনপির সভাপতি এমএ হক, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি দিলদার হোসেন সেলিম, যুবদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি কাইয়ুম চৌধুরী, মহানগর সিনিয়র সহ সভাপতি নাসিম হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী ঢাকায় অবস্থান করেন।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys