ময়না তদন্তে ডা. মাহজাবীনের আত্মহত্যা : পরিবারের প্রত্যাখান

by News Room

সিলেটের খবর ডেস্ক:আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য খান টিপু সুলতানের পূত্রবধূ ডা. শামারুখ মাহজাবিন আত্মহত্যা করেছেন বলে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। তবে এই ময়নাতদন্ত রিপোর্ট তাৎক্ষণিকভাবে প্রত্যাখ্যান করেছেন ডা. শামারুখের পরিবার।

রবিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ জানান, ময়নাতদন্ত পরীক্ষার জন্য যেসব নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল, সবগুলো নমুনার রিপোর্ট আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে। এতে দেখা গেছে, মাহজাবিন আত্মহত্যা করেছেন।

তিনি বলেন, ‘তার হাতে যে তিনটি কাটা দাগ পাওয়া গেছে তার পরীক্ষায় দেখা গেছে সে নিজেই হাত কাটার চেষ্টা করেছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্টটি আমরা ধানমন্ডি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছি।

রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করে মাহজাবিনের বাবা বলেন, আমি আগেই বলেছিলাম ময়নাতদন্ত রিপোর্ট সঠিক হবে না। এই রিপোর্ট প্রভাবিত করা হবে। আমার আশঙ্কাই সত্যি হল। আমি এই রিপোর্ট মানি না।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘এর আগে সুরতহাল রিপোর্টকেও প্রভাবিত করা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, ১৩ নভেম্বর দুপুর ২টার দিকে ডা. শামারুখ মাহজাবিনকে অচেতন অবস্থায় ধানমন্ডির সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার শাশুড়ি জেসমিন আরা বেগম। কর্তব্যরত চিকিৎসক মেহজাবিনকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি ধানমন্ডির ৬ নম্বর রোডের ১৪ নম্বর বাসার তৃতীয়তলার ভাড়া বাসায় শ্বশুর-শাশুড়ি ও স্বামীর সঙ্গে বসবাস করতেন।

এ ঘটনা পর মাহজাবিনের বাবা নূরুল ইসলাম ঘটনার দিনই ধানমন্ডি থানায় টিপু সুলতান দম্পতি ও স্বামীর বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এই মামলায় টিপু সুলতান দম্পতি জামিনে এবং ছেলে কারাগারে আছে।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys