মুক্তি পেয়েছে ‘স্বপ্ন ছোঁয়া’, ‘মেঘমল্লার’ ও ‘হৃদয়ে ৭১’ নামক তিনটি সিনেমা

by News Room

বিনোদন ডেস্ক: শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে তিনটি সিনেমা। শফিক হাসান পরিচালিত ‘স্বপ্ন ছোঁয়া’, জাহিদুর রহমান অঞ্জন পরিচালিত ‘মেঘমল্লার’ এবং সাদেক সিদ্দিকী পরিচালিত ‘হৃদয়ে ৭১’ ছবিটি।

‘স্বপ্ন ছোঁয়া’
৬৪টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে শফিক হাসান পরিচালিত ‘স্বপ্ন ছোঁয়া’ ছবিটি। সিনেমাটিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাইমন-ববি। এছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন  তানভির, মিশা সওদাগর, রেবেকা, কাজী হায়াৎ প্রমুখ।

 

মুন্নি প্রোডাকশন প্রযোজিত ‘স্বপ্নছোঁয়া’র কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন মুনির রেজা। চিত্রগ্রহণ মজিবুল হক ভুইয়া। সম্পাদনা আমজাদ হোসেন, অ্যাকশন চুন্নু, ড্রেস আলাউদ্দিন, মেকআপ সেলিম, নৃত্যপরিচালনায় মাসুম বাবুল ও জাকির হোসেন।

এই সিনেমায় মোট গান রয়েছে ৫টি। গানগুলোর  সংগীতায়োজন করেছেন আহম্মেদ হুমায়ূন।

‘মেঘমল্লার’
সরকারি অনুদানে আখতারুজ্জামান ইলিয়াসের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ছোট গল্প ‘রেইনকোট’-এর ছায়া অবলম্বনে জাহিদুর রহিম অঞ্জনের পরিচালনায় নির্মিত চলচ্চিত্র ‘মেঘমল্লার’।

এর গল্প শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ শুরু হবার প্রায় ৬ মাস পরে, বাংলাদেশের একটা মফস্বল শহরে। ১৯৭১ সালের শরৎ-এর টানা ৩ দিনের বর্ষার মধ্যে এই বিয়োগান্তক আখ্যান গড়ে উঠেছে। নুরুল হুদা শহরের সরকারী কলেজে কেমিস্ট্রির সিনিয়র লেকচারার, এ গল্পের মূল চরিত্র। স্ত্রী আসমা আর ৪ বছরের মেয়ে সুধাকে নিয়ে মধ্যবিত্তের সুখ-দুঃখের সাধারণ সংসার তার। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধ আরো অনেক সাধারণ মানুষের মতো তাকেও জীবন-মৃত্যুর সংকটের মধ্যে ঠেলে দেয়।

 

আরো কয়েকজন শিক্ষক মতো নুরুল হুদাও নিয়মিত কলেজে যায়, পাকিস্তানি ভাবাপন্ন শিক্ষকদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলে। কিন্তু মনে প্রাণে সে বাংলাদেশের স্বাধীনতা প্রত্যাশা করে। এক বর্ষার সকালে প্রিন্সিপ্যালের পিয়ন ইসহাক নূরুল হুদার বাড়ীতে উপস্থিত হয়। তার কথায় বোঝা যায় রাতে বৃষ্টির মধ্যে মুক্তিযোদ্ধারা কলেজের ট্র্যান্সফার বোমা মেরে উড়িয়ে দিয়েছে, আর যাবার সময় প্রিন্সিপ্যালের বাড়ীতেও গ্রেনেড ছুঁড়ে মেরেছে। ভয়াবহ অবস্থা। পাশের আর্মি ক্যাম্প থেকে মেজর এসে বসে আছেন। প্রিন্সিপ্যাল নূরম্নল হুদাকে এখুনি তলব করেছেন। নূ্রুল হুদা ভীতু প্রকৃতির মানুষ’। তারপর কি হল তা জানতে হলে দেখতে হবে ছবিটি।

বেঙ্গল এন্টারটেইনমেন্টের প্রযোজনায় ছবিটিতে অভিনয় করেছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, অপর্ণা, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ।

‘হৃদয়ে ৭১’
রোকেয়া ইসলামের কাহিনী অবলম্বনে এবং সাদেক সিদ্দিকী পরিচালনায় নির্মিত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘হৃদয়ে ৭১’।

এই ছবির গল্পে দেখা যাবে, মুক্তিযুদ্ধ ও একাত্তরের আদর্শ বুকে নিয়ে, যুদ্ধ পরবর্তী বাংলাদেশকে দেখতে আসে মল্লিকা। বিপত্নীক মাহমুদের বাড়িতে ওঠে। মাহমুদ তার এক সময়ের সহযোদ্ধা ও ভালোবাসার মানুষ। দুই ভার্সিটি পড়ুয়া ভাগ্নি রিয়া আর পিয়াকে নিয়ে তার জীবন। রিয়া-পিয়াও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে ধারণ করছে নিজেদের মধ্যে। তাদের পছন্দের মানুষ আছে। নাম রেজা ও সাগর। এই দুই যুবকও স্বাধীনতার আদর্শকে লালন করে চলেছে। মল্লিকা একজন বীরাঙ্গনা। একাত্তরের সে একজন নারী মুক্তিযোদ্ধা। তার একাত্তরের জীবন ও যুদ্ধের গল্প শোনায় সে নতুন প্রজন্মকে। এভাবেই এগিয়ে যায় ছবিটির কাহিনী।

 

ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইমন, রুমানা, আন্না, সাগর, সাইফ খান, রাখী, শহীদুল আলম সাচ্চু, হীরা, আশরাফ কবীর, আব্বাসউল্লাহ, মারুফ, আমীর, উদয় খান, নিশু রহমান প্রমুখ।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys