বাংলাদেশের ছেলে কামাল যেভাবে ভারতের পতিতা মিস নিহা

by News Room
সিলেটের খবর ডেস্ক:কামাল ২৫ বছরের যুবক।ফকিরের দেশে ফকির হয়ে জন্ম নিলে যা হয়, স্ত্রী সাজেদা আর তিন বছরের পুত্র সাদেকুলকে ঝিনাইদহে গ্রামের বাড়িতে রেখে জীবিকার খোঁজে বিদেশ পাড়ি দেয় কামাল।এর বেশি মুরোদ ছিলো না। দুবাই কাতার যেতে পারেনি। বিত্তবান ফকিরদের মতো কানাডা অষ্ট্রেলিয়া স্বপ্নেও দেখেনি সে। তার দৌড় পাশের দেশ ভারত পর্যন্ত।

তারপর এক দীর্ঘ কাহিনী। কামালের জন্য চরম বেদনাদায়ক, দাদাদের জন্য রগরগে আনন্দপ্রদায়ক। মুম্বাই শহরে নিয়ে অপারেশন করে কামালের পুরুষাঙ্গ ও অনডকোষ কেটে ফেলা হয়। নিয়মিত ইনজেকশনের মধ্যে দিয়ে স্ত্রী হরমোন ঢুকানো হয় তার শরীরে। সিলিকন ঢুকিয়ে তার বুক বড় করা হয়। হরমোনের প্রভাবে শরীরে কিছু পরিবর্তন আসতে থাকে, চুল হয় লম্বা, দাড়ি মোঁচ আর উঠে না, গাল হয়ে ওঠে মসৃণ।

এরপর আড়াইটা বছর ধরে ব্যাঙ্গালোরের এক হোটেলে বন্দী করে তাকে দিয়ে পতিতাবৃত্তি করানো হয়। আড়াইটা বছর তার ওপর উপগত হয় অজস্র ভারতীয় বাবু। তার নাম রাখা হয় মিস নিহা। আড়াই বছর ধরে বাবুদের তৃপ্তি দিতে বাধ্য হয়, পতিতা হয়ে বন্দী থাকা নিহা ওরফে কামাল।

এ বর্ণনা লিখতেও গা শিউরে ওঠে। কিন্তু এটা আমার বানানো না, ঘটনাগুলো ঠিক এভাবেই শুক্রবার আর শনিবারের জাতীয় দৈনিক মানবজমিন ও সমকালে এসেছে।

কামাল বাংলাদেশের নিয়তির অগ্রিম নিদর্শন। কামাল বাংলাদেশের ভবিষ্যত ছবি। দাদারা (ভারত)এ দেশের শৌর্য বীর্য ধ্বংস করে ফেলেছে। এদেশের গর্ব করার মতো কিছু আর নেই, এমনকি সেনাবাহিনীও ধ্বংস হয়ে গেছে।এইতো গত শনিবার আমাদের প্রধানমন্ত্রীপুত্র সাজিব ওয়াজেদ জয় ভারতীয় পত্রিকায় বলেছেন‘‘বাংলাদেশে সেনা অভ্যুত্থান ঘটানোর মতো জেনারেল নেই।’’

মোরাল নষ্ট হয়ে গেছে। দিনের পর দিন ষ্টার প্লাস, জলসা, বলিউড, শাহরুখ খান সালমান খান কাত্রিনা কাইফ আর সানি লিওনের ইনজেকশন দিয়ে দিয়ে শিলা কি জওয়ানীর হরমোন ঢুকানো হয়েছে জাতির মননে।

কিশোর কিশোরিরা এখন দেবুনেয়ারে(পর্নো সাইট) একাউন্ট খোলা নিয়ে গল্প করে, এয়ারটেলের এড দেখে)দেদারসে মোবাইল কিনে। ভাবীরা দলে দলে শারদীয় পুজা উপলক্ষে কল্যাণময়ী দিদি সেজে ছবি তুলে পত্রিকায় টিভি চ্যানেলে প্রতিযোগিতায় নামে।

বাংলাদেশী জাতির ওপর বাবুরা টিপাইমুখ তিস্তা ট্রানজিট ট্রান্সশিপমেন্ট ইত্যাদি ইত্যাদি বংশদন্ড দিয়ে নিয়মিত উপগত হন।

কামাল নিজে নিজে গিয়ে পতিতা বনে যায়নি। আদম ব্যাবসায়ী দালাল, অপারেশনকারী ডাক্তার, হরমোন পুশকারী পিম্প এরা বিশাল একটা চক্র। বাংলাদেশ নিজে নিজে ভোগ্যা হয়ে ওঠেনি। আমাদের রাজনৈতিক নেতা নেত্রী আর বুদ্ধিজীবি সাংবাদিকরা নিয়মিত পালিশ করে দেশটাকে কামাল বানাচ্ছে। এখন দাদাদের মজা লুটার পালা।

কামালের খবর প্রথম যেদিন পত্রিকায় আসে সেদিন এক বাংলা ব্লগে এ খবর নিয়ে পোষ্ট আসার পর তাতে ভাদাদের চরম আষ্ফালন ও লাফালাফি দেখা যায়। তারা দলে দলে মন্তব্য করতে থাকে, এ খবর ভুয়া। গতকাল দেশের সব প্রধান পত্রিকায় খবর আসার পর তারা হারিয়ে গেছে, বোবা হয়ে গেছে। দাদাদের (ভারত) তুলনায় ভাদারা(দালাল) কামালের জন্য বেশি ক্ষতিকর। আগেকার দিনে লুচ্চা রাজাদের হারেমে খোজার দল থাকতো। বাংলাদেশের এই ভাদারা হলো খোজার দল, দেশটা ধর্ষিত হচ্ছে, আর এই খোজার দল নির্লজ্জ উপভোগের সাথে চাটামী করে যাচ্ছে।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys