নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনকালে ইয়াহ্ইয়া এমপি: জাতীয় সংসদে নদী ভাঙ্গনের প্রতিকার দাবী করেছি

by News Room

নুরুল হক শিপু:বালাগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন সিলেট-২ আসনে সংসদ সদস্য, বন ও পরিবেমন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্য, ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী এহিয়া। তিনি শনিবার বিকেল ৩টা থেকে সন্ধা ৭টা পর্যন্ত বালাগঞ্জ সদর ও পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়নের নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনকালে বালাগঞ্জ বাজার, কালীগঞ্জ বাজার, হামছাপুর, জালালপুর বাজার এবং কুশিয়ারা বাজার এলাাকায় কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী ভাঙ্গনে তিগ্রস্থ গ্রাম গুলোর লোকজনের সাথে মত বিনিময় করেন। এসময় তাঁর সাথে সিলেট পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সহকারী উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী গোলাম মোস্তফা, প্যারিস লিংকনশিয়ার এলাকার কাউন্সিলর তুরুন মিয়া, বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ আলী আছগর, পুর্ব পৈলন ইউপি’র চেয়ারম্যান সান উলা, সাবেক চেয়ারম্যান, আব্দুর রহমান, বালাগঞ্জ উপজেলা জাপা’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি  ছালেহ আহমদ, সেক্রেটারী ফজলু মিয়া, সাংবাদিক শাহাব উদ্দিন শাহীন, রজত দাস ভুলন, আনোয়ার হোসেন আনা, শামীম আহমদ, ইউপি সদস্য প্রভাত চন্দ্র রায়, ফয়ছল আহমদ, জাপা নেতা সফিউল আলম সুফি, মকবুল হোসেন শিবলু, আবুল কালাম আজাদ, শিব্বির আহমদ, কামাল মিয়া, গনেশ দাস, হাজী মনফর আলী, আব্দুল মন্নান, আশিক মিয়া, ছাত্রলীগ নেতা শাহ আলম সজিব, ইয়াহিয়া সুজন, আওয়ীলীগ নেতা নিকসন মিয়া, আলম মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা মালিকুল ইসলাম, গৌরাঙ্গ নমসুদ্র, সমাজ সেবক ফজলুল হক, লকুছ মিয়া ও বালাগঞ্জ থানার এস আই অরুপ কুমার চৌধুরী প্রমুখ। পরিদর্শন কালে উপস্থিত জনসাধারণের উদ্দেশ্যে এমপি ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী বলেন, জাতীয় সংসদে নদী ভাঙ্গনে কথা উলেখ করে প্রতিকার দাবী করেছি এবং সংশিষ্ট মন্ত্রনালয়ে এ বিষয়ে আমি একটি ডিও লেটার ইস্যু করেছি। এর প্ররিপ্রেেিত মন্ত্রনালয়ের নির্দেশে পাউবো’র কর্মকর্তাকে সাথে নিয়ে সরেজমিন ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করতে আসা। তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে একটি প্রকল্প-প্রস্তাব প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ভাঙ্গন রোধে বর্তমান সরকার ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহন করেছে। এসব কর্মসূচী বাস্তবায়ন হলে স্থায়ীভাবে ভাঙ্গন রোধকরা সম্ভব হবে। তিনি কুশিয়ারা ডাইকের (বালাগঞ্জ-শেরপুর সড়ক) উন্নয়ন কাজের জন্য এলাকাবাসীকে ভুমি প্রদানে জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। সিলেট পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সহকারী উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী গোলাম মোস্তফা জানান, বালাগঞ্জ বাজার রার জন্য ইতিমধ্যে একটি প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে। বালাগঞ্জ বাজারের অবশিষ্ট অংশ ও রাধাকোনা গ্রাম রার জন্য ১ কিলোমিটার দৈর্ঘের একটি প্রকল্প-প্রস্তাব ইতিমধ্যে ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে। এই প্রকল্পটি অনুমোদন হলে এ অঞ্চলের ভাঙ্গন রোধ করা সম্ভব হবে।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys