উপশহরে বাসায় আটকে রেখে মারধর-মুক্তিপণ আদায়: ছাত্রলীগ নেতাসহ ৫ জন আটক

by News Room

আনোয়ার হোসেন, বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৪ : সিলেট নগরীর উপশহরে বাসায় আটকে রেখে দুই ব্যবসায়ী ও এক চিকিৎসককে মারধর ও মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে ছাত্রলীগের ৫ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার বিকেলে উপশহর এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।
আটককৃতরা হলো- জকিগঞ্জের সহিদপুর গ্রামের সিরাজ আহমদ খানের ছেলে ও সিলেট মহানগরের ২২নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মোশাহিদ খান, একই গ্রামের মাসুকুর রহমানের ছেলে ছাত্রলীগ কর্মী সুমন আহমদ, কানাইঘাটের দলইমাটি গ্রামের তৈয়ব আলীর ছেলে বদরুল আমীন, সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার অমৃতশ্রী গ্রামের নিরঞ্জন কুমার দাসের ছেলে চঞ্চল কুমার দাস ও কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম উপজেলার দেওযান দিঘীরপাড়ের ফজর আলীর ছেলে মিন্মর আলী। তাদের বিরুদ্ধে গতকাল বুধবার দক্ষিণ সুরমার কামালবাজার সোনাপুর গ্রামের মৃত আবদুর রহমানের ছেলে পল্লী চিকিৎসক শাহীন আহমদ বাদি হয়ে শাহপরাণ থানায় মামলা করেছে।

মামলার বাদি শাহীন আহামদ জানান, গত মঙ্গলবার সিলেট নগরীর উপশহর গার্ডেন টাওয়ারের সামনে থেকে ছাত্রলীগ নেতা মোশাহিদ খানের নেতৃত্বে একদল যুবক তাকে এবং তার সাথে থাকা ব্যবসায়ী লাহিন মিয়া ও মারুফ আহমদকে অপহরণ করে উপশহর এফ ব্লকের ৩নং রোডের ৭৭নং বাসায় আটকে রেখে মারধর করে। ওই রাতেই মারুফ ও লাহিন ৫০ হাজার টাকা দিয়ে ছাড়া পান। আর অপহরণকারীরা তার কাছে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে শাহীন মোবাইল ফোনে তার বন্ধু সোহেল রানাকে বিষয়টি অবগত করেন। বুধবার সকালে সোহেল ঘটনাটি শাহপরাণ থানাকে অবগত করে।

শাহপরাণ থানার ওসি শিবেন্দু দাশ জানান, অপহরণের খবর পেয়ে পুলিশ উপশহরে অভিযান চালিয়ে অপহৃত শাহীন আহমদকে উদ্ধার ও ছাত্রলীগের ৫ নেতাকর্মীকে আটক করে। এসময় ওই বাসা থেকে কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

You may also like

Leave a Comment


cheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys