রিমান্ডে মিন্নির মাথায় পিস্তল ধরে ভয় দেখায় পুলিশ, দাবি বাবার


নিউজ ডেস্ক :  বরগুনায় আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় তার স্ত্রী ও ৭ নম্বর আসামি আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে রিমান্ডের নামে নির্যাতনের অভিযোগ তুলে ধরে মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর দাবি করেন, রিমান্ডের নামে পুলিশ ওর (মিন্নি) মাথায় পিস্তল ধরেছে। নির্যাতন করেছে। ভয়ভীতি দেখিয়েছে। এরপর থেকেই ও (মিন্নি) বিষণ্নতায় ভুগছে। তাই ওর চিকিৎসা একান্ত প্রয়োজন, এজন্যই ঢাকায় এসেছি।

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে মিন্নির জামিনের পক্ষে থাকা আইনজীবী জেড আই খান পান্নার চেম্বারে সাক্ষাৎ ও আইনি পরামর্শ শেষে সাংবাদিকদের কাছে এসব অভিযোগ তোলেন মিন্নির বাবা।

মোজাম্মেল হোসেন কিশোর আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘মিন্নিকে রিমান্ডের নামে নির্যাতন করা হয়েছে। সে এখনও তার ভয়াবহতায় ভুগছে। তার হাঁটুতে ব্যথা, তার জয়েন্টে জয়েন্টে ব্যথা। এ কারণে তাকে ডাক্তার দেখাতে (ঢাকায়) নিয়ে এসেছি।’

এখনও শঙ্কা রয়েছে জানিয়ে মিন্নির বাবা বলেন, ‘এখনও ভয়ভীতি আছে। অনেক সময় আকার-ইঙ্গিতে বুঝতে পারছি, আমাকে ভয়ভীতি দেখানোর চেষ্টা করতে চায়। সব সময় আমাদের ফলো করে। আমি এক ধরনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। প্রভাবশালী একটি কুচক্রী মহলের কাছ থেকে মিন্নি রেহাই পেলো না। যে কারণে সে আজ  সাক্ষী থেকে আসামি ‘

কত দিন ঢাকায় থাকবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা বলা যাচ্ছে না। চিকিৎসা যতদিন লাগবে ততদিন।’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*